আইইএলটিএস স্পিকিং প্রস্তুতির A টু Z (শেষ পর্ব)

আইইএলটিএস স্পিকিং পরীক্ষা সম্পর্কে যে তথ্যগুলো জানা প্রয়োজন, তার অধিকাংশই জানা হয়ে গিয়েছে আগের লেখাগুলোতে। এই লেখাটি আইইএলটিএস স্পিকিং সম্পর্কিত শেষ লেখা। এই লেখাটিতে সামগ্রিকভাবে আইইএলটিএস স্পিকিং প্রস্তুতির কিছু টিপস, প্রশ্নের কিছু নমুনা ও আরো বেশ কিছু আইইএলটিএস স্পিকিং প্রস্তুতির উৎস সম্পর্কে তথ্য দেওয়া হবে।

আইইএলটিএস স্পিকিং পরীক্ষার সময় যে বিষয়গুলো মনে রাখতে হবে,

১। শুনুন

স্পিকিং টেস্ট বলে এমনটা মনে করবেন না যে আপনাকে শোনার কোনো দরকার নেই। যোগাযোগের প্রথম ও সবচেয়ে জরুরী বিষয়টি হচ্ছে শোনা। বলার আগে শুনে বুঝে নিন। তোতা পাখির মতো মুখস্থ কিছু বলা থেকে বিরত থাকুন।

Source: claritycertainty.com

২। মনোযোগ দিন

প্রশ্নের উত্তর মনের মধ্যে গুছানো এবং কীভাবে উত্তর করবেন তার ধারাবাহিকতা সাজানো সহজ। কিন্তু সাজানো তথ্য গুছিয়ে উপস্থাপন করাটা সবচেয়ে বড় সমস্যা। এর জন্য গভীর মনোযোগের প্রয়োজন। চেষ্টা করুন সব সময় মনোযোগ ধরে রাখতে।

৩। কথা বলুন

যতক্ষণ পর্যন্ত পরীক্ষক আপনাকে না থামান, ততক্ষণ পর্যন্ত বলতে থাকুন। চেষ্টা করুন, যে বিষয়ে আপনাকে জিজ্ঞেস করা হয়েছে সেই সম্পর্কে বলতে।

৪। আপনি যা তাই প্রকাশ করুন

আপনি যা তাই প্রকাশ করুন। মেকি কোনো কিছু বিপরীত ফলাফলের কারণ হতে পারে। দক্ষতার প্রমাণ রাখতে গিয়ে মুখস্থ করতে যাবেন না। ভাষা মানুষের সহজাত প্রবৃত্তির অংশ। পরীক্ষক খুব সহজেই ধরতে পারবেন, যদি মুখস্থ করে কিছু বলতে যান কিংবা মিথ্যা উত্তর দেন।

স্পিকিং এর কিছু নমুনা প্রশ্ন ধাপগুলোর জন্য

পর্ব- ১ এ সাধারণত জিজ্ঞেস করা হয় এমন কিছু প্রশ্ন

নিজের সম্পর্কে বলুন…………আপনার বাড়ি কোথায়/ আপনি কোথায় থাকেন

  • আপনি কোথায় থাকেন/ আপনার বাসা কোথায়?
  • এটা কোথায় ?
  • আপনার এলাকার কোন জিনিসটি সবচেয়ে পছন্দের? কেন?
  • আপনার এলাকার কোন জিনিসটি সবচেয়ে অপছন্দের? কেন?
  • এলাকাটি কেমন?
  • এলাকাটি সম্পর্কে বলুন।
  • আপনার এলাকার সবচেয়ে সুন্দর জায়গাটি কোথায়?
  • আপনার এলাকার অধিকাংশ লোক কী করেন?
  • আপনি কীভাবে আপনার এলাকার উন্নতিতে অবদান রাখতে পারেন?
  • সাম্প্রতিক আপনার এলাকায় কোন কোন বিষয়গুলোর পরিবর্তন হয়েছে?

বলুন…………… আপনার গ্রামের বাড়ি সম্পর্কে/ আপনি যে জায়গা থেকে এসেছেন তার সম্পর্কে/ আপনার দেশ/ যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পড়ালেখা করেছেন ইত্যাদি সম্পর্কে। মোটামুটি এই ধরনের প্রশ্ন পরীক্ষক করে থাকেন। এই প্রশ্নগুলোর সম্ভাব্য উত্তর কী হতে পারে ভেবে নিয়ে অনুশীলন করা শুরু করে দিন।

Source: careerpivot.com

পর্ব- ২ এ সাধারণত জিজ্ঞেস করা হয় এমন কিছু প্রশ্ন

আপনি কি করেন?

পরীক্ষক আপনাকে জানাবেন যে আপনার বর্তমান কাজ সম্পর্কে প্রশ্ন করা হবে। এরপর আপনাকে জিজ্ঞেস করা হবে আপনি কী করেন, চাকরি নাকি পড়ালেখা? এটা শুধু মূল প্রশ্ন যাতে পরীক্ষক বুঝতে পারেন এরপর  কী ধরনের প্রশ্ন করতে হবে। তাই এই প্রশ্নের উত্তর করুন এক শব্দে।

চাকরি / কাজ 

  • আপনি কোথায় কাজ করেন?
  • আপনি কী কাজ করেন?
  • আপনি কি আপনার কাজ উপভোগ করেন? কেন?
  • আপনার কাজের কোন অংশটি অপছন্দের ? কেন ?
  • আপনি কীভাবে উন্নতি করতে চাইবেন ক্যারিয়ার জীবনে?
  • এই কাজের জন্য কোন ধরনের ট্রেনিং প্রয়োজন বলে মনে করেন ?
  • এই কাজ কিংবা ক্যারিয়ার কেন পছন্দ করলেন ?
  • আপনি কী ভবিষ্যতে আপনার ক্যারিয়ার পরিবর্তন করতে পছন্দ করবেন?
  • আপনার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কী ?

পড়ালেখা 

  • আপনি কোথায় পড়েন?
  • কোন বিষয়ে পড়ালেখা করেন?
  • এই বিষয় কেন নির্বাচন করেছেন?
  • এই বিষয়ের কোন অংশটি আপনার সবচেয়ে পছন্দের? কেন?
  • কোন অংশটি অপছন্দের? কেন?
  • আপনার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কী?
  • আপনার মতে ভবিষ্যতে কোন বিষয়ের চাহিদা সবচেয়ে বেশি হতে পারে?
  • ছেলে ও মেয়েদের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় বিষয়টি কোনটি?

এরপর কোনো পরিস্থিতি দিয়ে আপনাকে সে সম্পর্কে বলতে বলা হবে।

পর্ব- ৩ এ সাধারণত জিজ্ঞেস করা হয় এমন কিছু প্রশ্ন

এই অংশে এমন কিছু প্রশ্ন করা হবে যেগুলো আগের অংশের সাথে সম্পর্কিত এবং আপনার চিন্তা-ভাবনার প্রতিফলন ঘটায়। এই অংশে প্রশ্নকর্তা পরীক্ষার্থীর কাছে যৌক্তিক উত্তর আশা করবেন। আপনি যদি সংক্ষিপ্ত উত্তর করেন, তবে তেমন একটা ভালো স্কোর আশা করা কঠিন। আপনার মতামত নয়, আপনার যোগাযোগের দক্ষতার উপর নির্ভর করে আপনাকে মার্ক দেওয়া হবে এই অংশে। তাই কোনো কিছু সম্পর্কে না জানলে ভয় পাবেন না। নিজের মতামত প্রকাশ করবেন নিশ্চিন্তে।

Source: publicagenda.org

মতামত প্রকাশের কিছু উপায়

কোনো বিষয়ে একমত কিংবা দ্বিমত পোষণ করলে বলতে পারেন,

আমার মনে হয় / আমার মনে হয় না (I think / I don’t think)…………

আমার বিশ্বাস (I believe / I don’t believe) ……………

ব্যক্তিগত ভাবে আমি মনে করি (Personally, I think) ………………………………

আমার মতে (In my opinion/In my view ) ……………………

আমি যেভাবে দেখি সেটা হচ্ছে ( It seems to me that )… ………………………

যখন ভিন্ন মত প্রকাশ করতে যাবেন,

আমি ঠিক নিশ্চিত নই (I’m not sure)………………………

যাই হোক, আমি ঠিক জানি না কিন্তু (Well, I don’t know for sure but) ……………

সম্ভবত, কিন্তু (Possibly, but) ……………………………..

স্পিকিং অংশে আপনাকে ভেবে উত্তর করতে হবে। তাই উত্তর করবার সময় ভাবার জন্য সময় নিতে পারেন সহজ কিছু ট্রিক্স ব্যবহার করে। যেমন,

  • প্রশ্নকর্তাকে অনুরোধ করুন পুনরায় প্রশ্নটি করতে।
  • প্রশ্ন নিয়ে মন্তব্য করুন। যেমন, চমৎকার প্রশ্ন! আমার মতে…………
  • নিজের দৃষ্টিভঙ্গি সম্পর্কে বলুন। যেমন, প্রথমত আমি বলতে চাই……………কিংবা আগে কখনো এই বিষয়ে ভেবে দেখিনি তবে আমার মতে………………
  • কোনো শব্দের অর্থ জিজ্ঞেস করতে পারেন। যেমন, “——” শব্দটি বুঝতে পারিনি। দয়া করে যদি বুঝিয়ে দিতেন? তবে এক্ষেত্রে সত্যিই যদি অর্থ না জানেন তবেই কেবল প্রশ্ন করতে পারেন।
Source: medium.com

আইইএলটিএস স্পিকিং প্রাকটিসের আরো কিছু লিংক,

একটা কথা আছে, ” ততক্ষন পর্যন্ত কোনো পরিস্থিতির জন্য সম্পূর্ণভাবে প্রস্তুতি নেওয়া যায় না, যতক্ষণ না ঐ পরিস্থিতির মুখোমুখি হোন”। তাই যতই প্রস্তুতি নেওয়া হোক না কেন অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতির মুখোমুখি হতেই পারেন। নিজেকে প্রস্তুত করুন অনাকাঙ্ক্ষিত যে কোনো পরিস্থিতির মুখোমুখি হওয়ার জন্য। আপনার জন্য এটাই হবে সবচেয়ে বড় প্রস্তুতি।

Source: youtube.com

স্বপ্ন যদি হয় দেশের বাইরে উচ্চ-শিক্ষা নেওয়ার, তবে স্বপ্নের জন্য ত্যাগ স্বীকার করতে শিখুন। স্বপ্ন সত্যি হয়, দাম দিতে জানলে। আপনার জন্য শুভকামনা রইলো।

Featured Image:ielts-academic.com

The post আইইএলটিএস স্পিকিং প্রস্তুতির A টু Z (শেষ পর্ব) appeared first on Youth Carnival.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *