যে ভুল বিনিয়োগ অনুমান আপনাকে অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করছে

আপনার দীর্ঘদিনের স্বপ্ন একজন সফল ব্যবসায়ী হওয়ার। কেননা দীর্ঘদিন ধরে চাকরি করে একটু একটু করে অর্থ সঞ্চয় করে ধনী হওয়া আপনার পছন্দ নয়। সারাজীবন চাকরি করে শেষ বয়সে সামান্য অবসরকালীন ভাতা পেলে আপনার পোষাবে না। এমনকি সারা বছর তিল তিল করে অর্থ সঞ্চয় করে বছর শেষে বাড়িতে একটা নতুন আসবাব কেনাও আপনার কাছে অর্থহীন বলে মনে হয়।

Source: DNA India

আপনার চায় অঢেল সম্পদ। আনুপাতিক হারে আপনার সম্পদ বাড়বে এবং আপনি খুব দ্রুত ধনী হয়ে যাবেন; এই স্বপ্ন বাস্তবায়ন করার জন্যই আপনি ব্যবসায়ী হতে চান। সৃষ্টি করতে চান কর্মসংস্থান, হতে চান লক্ষ কর্মীর নেতা।

পরিকল্পনা অনুযায়ী ক্ষুদ্র পরিসরে ইতিমধ্যে আপনি ব্যবসা শুরু করে দিয়েছেন। শেখার জন্য ক্রমাগত উদ্যোক্তাদের বিভিন্ন নেটওয়ার্ক এবং অনুষ্ঠানে যুক্ত হচ্ছেন। কিন্তু শত প্রচেষ্টা সত্ত্বেও আশানুরূপ ফল পাচ্ছেন না। যেমন আশা করেছিলেন ব্যবসায় তেমন গতি পাচ্ছেন না। আশানুরূপ পণ্য বিক্রি বা রোজগার নিশ্চিত হচ্ছে না। কিন্তু কেন? উদ্যোক্তা হিসেবে আপনার ভুল কোথায়?

উদ্যোক্তা হিসেবে আপনার সীমাবদ্ধতা

দীর্ঘদিন ব্যবসা করেও আশানুরূপ ফল না পেলে বুঝতে হবে উদ্যোক্তা হিসেবে আপনার কিছু সীমাবদ্ধতা আছে। এই সীমাবদ্ধতা নানা রকম হতে পারে। কেননা একটি ব্যবসা উদ্যোগের সাথে অনেক বিষয় জড়িত থাকে। তবে সব কিছুর মূলে আছে আপনার সাহস এবং বিচক্ষণতা।

আপনি যখন অন্য দশজন ভীত মানুষের মতো চাকরি অনুসন্ধান না করে উদ্যোক্তা হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তখন নিশ্চয়ই আপনি সাহসী। কেননা উদ্যোক্তার পথ সবসময় কণ্টকময় হয়। তাহলে কেন আপনি সাহস করে ব্যবসার অন্যান্য সীমাবদ্ধতা কাটিয়ে উঠতে পারছেন না?

Source: W3 Accelya

আসলে বেশিরভাগ উদ্যোক্তা ব্যবসা শুরু করার সময় এটাকে সাহসী সিদ্ধান্ত বা চ্যালেঞ্জিং কাজ হিসেবে মনে করে না। অন্যান্য সফল উদ্যোক্তার লাইফস্টাইল এবং সম্পদ দেখে হঠাৎ করেই উদ্যোক্তা হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে বসে। যে কারণে উদ্যোগ নেওয়ার পর সাহসী বিনিয়োগ সিদ্ধান্তের অভাবে বছরের পর বছর একই জায়গায় ঘুরপাক খায়।

ক্ষুদ্র পরিসরে ব্যবসা শুরু করে বড় ব্যবসায়ী হওয়ার স্বপ্ন দেখলে আপনাকে বিনিয়োগের ব্যাপারে সাহসী হতে হবে। সময় উপযোগী বিনিয়োগ পরিকল্পনা করে সাহসিকতার সাথে বাজারে প্রবেশ করতে হবে।

কেননা আপনার ব্যবসা বড় করতে বা দ্রুত অধিক সাফল্য বয়ে আনতে প্রধান ভূমিকা পালন করে বিনিয়োগ সিদ্ধান্ত। আপনি যত বেশি পরিমাণ বিনিয়োগ করবেন সফল হওয়ার এবং সম্পদ বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা ততো বৃদ্ধি পাবে।

Source: Money Sense

কিন্তু অধিকাংশ উদ্যোক্তা বিনিয়োগের ব্যাপারে ভুল অনুমান করে। নানান ধরণের ভয়, ঝুঁকি এবং জটিলতার কারণে বছরের পর বছর কোনো উন্নতি করতে পারে না। এমনকি কখনো কখনো ভুল সিদ্ধান্ত নিয়ে মূলধন নষ্ট করে।

এখানে এমন কিছু ভুল বিনিয়োগ অনুমান নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো। বিনিয়োগের এই ভুল অনুমানগুলো শুধরে নিয়ে সাহসিকতা এবং বিচক্ষণতার সাথে বিনিয়োগ করতে পারলে আপনি অচিরেই কাঙ্ক্ষিত সাফল্য অর্জন করতে পারবেন।

বিনিয়োগ বিশেষজ্ঞ হওয়া

অনেক উদ্যোক্তার ধারণা অর্থ পরিচালনা এবং সঠিক বিনিয়োগ ক্ষেত্র খুঁজে পেতে নিজেকে বিনিয়োগ বিশেষজ্ঞ হতে হয়। কেননা বিশেষজ্ঞরা বাজারের সার্বিক পরিস্থিতি জানেন এবং সঠিক বিনিয়োগ পরিকল্পনা করতে পারেন।

এই কারণে বিশেষজ্ঞ না হওয়ায় অনেক উদ্যোক্তা সাহস করে বিনিয়োগ করতে ভয় পায়। ফলে তার অবস্থার উন্নতি হয় না।

Source: Coin Desk

আসলে বিনিয়োগ করার জন্য আপনাকে বিনিয়োগ বিশেষজ্ঞ হতে হবে না। যদি বিশেষজ্ঞরাই শ্রেষ্ঠ বিনিয়োগকারী হতো তাহলে বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতির অধ্যাপকরা সব বড় কোম্পানির মালিক হতো।

সুতরাং এই ভুল ধারণা থেকে বেরিয়ে আসুন এবং সাহসিকতার সাথে বিনিয়োগ করুন। আপনার বিনিয়োগ থেকে অর্থ উপার্জন করার জন্য নিজ ব্যবসার বাজার সম্বন্ধে মোটামুটি ধারণা থাকলেই চলবে।

বাজারে প্রবেশের চ্যালেঞ্জ

অনেক উদ্যোক্তা শুধু সাহসিকতার অভাবে বাজারে প্রবেশ করতে পারে না। তারা নিজেদের বাজারে বিট করার উপযুক্ত মনে করে না। তারা মনে করে, বড় ব্যবসায়ী বা বিনিয়োগকারীরা তাদের ছোট ছোট বিনিয়োগ বিট করে মূলধন নষ্ট করে দেবে।

Source: Sci Blogs

আসলে ভয় পাওয়ার কথা বড় বিনিয়োগকারীদের। কেননা নতুন এবং ছোট ছোট বিনিয়োগ অভিনব সুযোগ সুবিধা নিয়ে আসে। যার ফলে ক্রেতারা অধিকাংশ ক্ষেত্রে বড় প্রতিষ্ঠান ছেড়ে ছোট বিনিয়োগকারীদের পণ্য বা সেবা নিতে আগ্রহী থাকে।

সুতরাং ছোট বিনিয়োগকারী বলে নিজেকে অবমূল্যায়ন করবেন না। বরং সাহসিকতার সাথে বড় প্রতিষ্ঠানকে বিট করে বাজারে প্রবেশ করুন। নিশ্চয়ই আপনি সাফল্য ছিনিয়ে আনতে পারবেন।

বিনিয়োগ ঝুঁকি

বিনিয়োগ মানেই ঝুঁকি, অথবা বলা যায় বিনিয়োগ কখনও ঝুঁকিমুক্ত হয় না। কিন্তু তাই বলে আপনি যদি কখনও ঝুঁকি না নেন, তাহলে বিনিয়োগের আসল রহস্য কখনোই জানতে পারবেন না। ঝুঁকি থাকবেই, কিন্তু আপনাকে বিচক্ষণতা এবং সাহসিকতার সাথে বিনিয়োগ করতে হবে।

ওয়ারেন বাফেট জীবনে সবচেয়ে বেশি পরিমাণ ঝুঁকি নিয়েছেন। তাই বড় ব্যবসায়ী হয়ে উঠতে পেরেছেন। শুধু ওয়ারেন বাফেট নয়, সব বড় কোম্পানি সৃষ্টি হয়েছে বড় বিনিয়োগ থেকে।

তাই বলে শুরুতেই বড় ঝুঁকি নিয়ে নিজের সব মূলধন একবারে বিনিয়োগ করবেন না। বরং একটু একটু করে অভিজ্ঞতা অর্জন করার সাথে সাথে বিনিয়োগের পরিমাণ বাড়ান। যত দ্রুত বিনিয়োগের পরিমাণ বাড়াতে পারবেন তত দ্রুত আপনার ব্যবসা বড় হবে এবং অবশ্যই সম্পদের পরিমাণ বৃদ্ধি পাবে।

Source: Adrian Mooy

চাকরিতে যেমন প্রতি মাসে কাজের নির্দিষ্ট পরিমাণ থাকে। তেমনি মাস শেষে স্যালারির পরিমাণও নির্দিষ্ট থাকে। তাই এখানে ঝুঁকি থাকে শূন্যের কোঠায়। কিন্তু ব্যবসায় প্রতি মাসের কাজের পরিমান নির্দিষ্ট থাকে না। তেমনি রোজগার ও সাফল্যের নির্দিষ্ট সীমারেখা থাকে না। কাজেই এখানে ঝুঁকি থাকবেই।

তাছাড়া ব্যর্থতা ছাড়া কখনোই বড় ব্যবসায়ী হওয়া যায় না। ব্যবসা করতে গেলে ছোট বড় নানান ব্যর্থতা আপনার সামনে আসবে। এসব ব্যর্থতা মোকাবেলা করে ছোট বড় ঝুঁকি নিতে নিতে আপনাকে এগিয়ে যেতে হবে। তাহলেই পৌঁছাতে পারবেন আপনার গন্তব্যে।

Feature Image: Money Sense

The post যে ভুল বিনিয়োগ অনুমান আপনাকে অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করছে appeared first on Youth Carnival.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *