লিংকডইনে কর্মী নিয়োগকারী ম্যানেজারকে আকর্ষণ করার প্রধান তিনটি ধাপ

ভার্চুয়াল যোগাযোগের একটা অন্যতম মাধ্যম হলো লিংকডইন। নিজেকে তুলে ধরার এক অনন্য প্ল্যাটফর্ম। এর সাহায্যে আপনি খুব সহজে পেতে পারেন আপনার পছন্দের কাজ। তবে এজন্যে আপনাকে কর্মী নিয়োগকারী ম্যানেজারকে আকর্ষন করতে হবে।

আপনি খুব সহজেই তিনটি ধাপ মেনে আকর্ষন করতে পারেন কর্মী নিয়োগকারী ম্যানেজারকে। চলুন জেনে নিই ধাপগুলো।

লিঙ্কডইন নেটওয়ার্ক ; source: Firebrand Talent

ধাপ ১: খুঁজে পাওয়া 

মনে রাখবেন নিয়োগকারী ম্যানেজার লিংকডইনের সব প্রোফাইল খুঁজে দেখবেন না। কেবল আপনার কাছে একটি প্রোফাইল আছে, এর অর্থ এই নয় যে তারা এটি ঘুরে দেখবেন। আপনার  প্রোফাইল যতোই ভালো হোক না কেনো, নিয়োগকারী ম্যানেজারের চোখে না পড়লে এটি আপনার কোন কাজেই আসবে না। 

সুতরাং, প্রথম পদক্ষেপটি হলো খুঁজে পাওয়া। অর্থাৎ, প্রোফাইল তৈরির সময় আপনাকে নিয়োগকারীর মতো করে ভাবতে হবে। এজন্য আপনাকে খুব একটা বেশি ভাবতে হবে না। নিয়োগকারী ম্যানেজাররা ব্যস্ত থাকেন এবং তাদের  খোঁজার জন্য খুব বেশি সময় থাকে না। তারা যদি কোনো বিষয়ে দক্ষ কাওকে খোঁজে, সেক্ষেত্রে তারা সেই বিষয়টির কি-ওয়ার্ডটি লিখেই খোঁজ করেন। উদাহারণ স্বরূপ, একজন ম্যানেজারের যদি মার্কেটারের প্রয়োজন হয় তিনি সার্চ বক্সে মার্কেটার লিখে খোঁজ করবেন। আবার কারো যদি প্রোডাক্ট ম্যানেজারের দরকার পরে, তিনি প্রোডাক্ট ম্যানেজার লিখে সার্চ করবেন।

এই সার্চে কীভাবে আপনি আপনাকে খুঁজে পাওয়াবেন? বিষয়টা খুবই সহজ। লিংকডইনের অ্যালগরিদম কীভাবে কাজ করে, সেটা জানতে পারলে কাজটা সহজ হয়ে গেলো। আপনার প্রোফাইলের শিরোনাম, সারমর্ম, অভিজ্ঞতা ও যোগ্যতা অংশে এই কি-ওয়ার্ডটি থাকতে হবে। পাশাপাশি আপনার কাজের জগতের মানুষদের সাথে যুক্ত থেকে, বিশেষ করে যে কোম্পানিতে কাজ পেতে চান সে কোম্পানির কর্মীদের পরিচিত তালিকায় যোগ করবেন।

এর ফলে খুব সহজে আপনার পছন্দের কোম্পানির এই খোঁজে আপনার প্রোফাইলটি লিংকডইন সার্চে খুঁজে পাওয়া যাবে।

চাকুরী পান লিংডইনে; source: Dede14

ধাপ ২: প্রথম দেখায় জিতুন

ধরে নিলাম, সার্চ রেজাল্টের শুরুতে আপনাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে। কিন্তু, কীভাবে আপনি একজন নিয়োগকারী ম্যানেজারকে আপনার প্রোফাইলে ঢুকতে বাধ্য করবেন? লিংকড ইনে সার্চ দেওয়ার পর আপনার প্রোফাইলের পাশাপাশি আরো অনেকগুলো প্রোফাইল শো করবে। এক্ষেত্রে ম্যানেজার তো আপনাকে খুঁজে পাওয়ার পরও প্রোফাইলে নাও ঢুকতে পারে। এজন্যই আপনার প্রোফাইলটিকে আকর্ষণীয় করতে হবে। প্রোফাইলকে দু’টি ধাপে আকর্ষণীয় করা যায়।

১. সাধারণ প্রোফাইল পিকচার

মানুষ হাসিখুশি, সাধারণ মানুষদের সাথে থাকতে পছন্দ করে।  তাই, গুরুগম্ভীর, মিথ্যে হাসি দেওয়া ছবি পরিহার করে সাধারণ সাবলীল ছবি প্রোফাইল পিকচার হিসেবে ব্যবহার করুন। তবে খেয়াল রাখবেন, এটা আপনার কর্মক্ষেত্রের সাথে সম্পৃক্ত। তাই ফেসবুকের প্রোফাইল পিকচারের মতো ভেবে ছবি দেবেন না। 

লিংকডইন প্রোফাইলের শিরোনাম; source: Money after graduation

২. চোখ আটকে দেওয়া শিরোনাম

প্রায় সব মানুষই সাধারণ কিছু শিরোনাম ব্যবহার করেন। তাই, আপনি যদি একটু ভিন্ন কথায় আপনার যোগ্যতাকে শিরোনামে তুলে ধরতে পারেন, তবে তা নিয়োগকারী ম্যানেজারের দৃষ্টি আকর্ষণ করবেই। এক্ষেত্রে সবসময় চেষ্টা করবেন যেন, শিরোনামে আপনার যোগ্যতার পাশাপাশি কোম্পানির ভবিষ্যত নিয়ে কাজ করার মানসিকতা প্রকাশ পায়। কেননা, প্রতিটি নিয়োগকারী ম্যানেজার চাইবেন এমন একজনকে নিয়োগ করতে, যিনি কোম্পানির ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করবেন। এবং ভবিষ্যতে কোনো প্রয়োজনে নিয়োগকৃত ব্যক্তি থেকে সাহায্য পাবেন।

লিংকডইন অফিস; source: Glass door

ধাপ ৩: আমন্ত্রন পান

নিয়োগকারী ম্যানেজারকে আকর্ষণ করতে সক্ষম হয়েছেন এবং তিনি আপনার প্রোফাইলে ঘুরে দেখছেন। 

একজন নিয়োগকারী ম্যানেজারের হাতে খুব বেশি সময় থাকে না। তিনি কখনোই আপনার পুরো প্রোফাইল খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে পড়বেন না। তিনি বিশেষ কয়েকটি জায়গা ঘুরে চলে যাবেন। এজন্য আপনার সেইসব জায়গায় একটু বেশি ভালো করে কাজ করতে হবে। 

লিংকডইন প্রোফাইল; source: Zipjob

সারমর্ম

আপনি খুঁজে পাওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় কি-ওয়ার্ডগুলো ব্যবহার করে দীর্ঘ সারমর্ম লিখতে পারেন। তবে, শুরুটা করবেন আপনার যোগ্যতার কথা একবাক্যে লিখে।

নিয়োগকারী ম্যানেজার আপনার পুরো সারমর্ম পড়বেন না। কি-ওয়ার্ড দিয়ে সারমর্ম তৈরি করবেন আপনাকে খুঁজে পাওয়ার জন্য। সারমর্মের সূচনাটা হবে নিয়োগকারী ম্যানেজারকে আশ্বস্ত করার জন্য- তিনি যাকে নিয়োগ করতে চাচ্ছেন, আপনি সেই ব্যক্তি।

লিংকডইন প্রোফাইলের অভিজ্ঞতা সেকশন; source: Coach

অভিজ্ঞতা

নিয়োগকারী ম্যানেজার কখনোই আপনার অভিজ্ঞতার সবকিছু খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে দেখবেন না। কেননা, একজনের পেছনে এত সময় দেওয়ার সুযোগ তার নেই। তিনি এক্ষেত্রে পদবী ও কোম্পানির নামগুলো শুধু দেখবেন। এজন্য আপনার পদবীর নাম যদি ভিন্ন ধরনের হয়, আপনাকে সেটার সবচেয়ে সহজ প্রতিশব্দ ব্যবহার করার চেষ্টা করতে হবে। এতে ম্যানেজারের বুঝতে সুবিধা হবে। 

প্রস্তাবনা

একজন নিয়োগকারী ম্যানেজার কখনোই আপনার পুরনো বসদের প্রস্তাবনা পুরোটা পড়ে দেখবেন না। তাই, আপনার পুরনো বসদের প্রস্তাবনার শুরুর প্রথম দুই বাক্যে আপনার যোগ্যতাগুলো তুলে ধরার চেষ্টা করতে বলবেন। এক্ষেত্রে ম্যানেজারের আপনার সম্পর্কে পর্যাপ্ত ধারনা হয়ে যাবে।

এগুলোই লিংকড ইনে নিয়োগকারী ম্যানেজারকে আকর্ষণ করার তিনটি প্রধান ধাপ। তবে মনে রাখবেন, লিংকড ইনের প্রোফাইলই সব না। আপনার প্রোফাইল হয়তো কর্মক্ষেত্রের ২০% কাজ করে দিবে, বাকী কাজ আপনারই। আপনি ম্যানেজারকে কীভাবে প্রভাবিত করতে পারেন, সেটার উপরই নির্ভর করছে শেষ পর্যন্ত আপনি কাজটি পাচ্ছেন কিনা। তাই, প্রোফাইল তৈরি করার পর, ম্যানেজারকে কীভাবে প্রভাবিত করে কাজ আদায় করে নিবেন সেটার জন্য নিজেকে প্রস্তুত করুন। 

Feature Image Source: Charlton Morris

The post লিংকডইনে কর্মী নিয়োগকারী ম্যানেজারকে আকর্ষণ করার প্রধান তিনটি ধাপ appeared first on Youth Carnival.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *