সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিস্ট হিসেবে যেভাবে ক্যারিয়ার গড়বেন

যেকোনো মানুষের ক্যারিয়ারের সবচেয়ে কঠিন কাজটি হলো তার চাকরির নিরাপত্তা। ২০২১ সালের মধ্যে সাইবার সিকিউরিটিতে  ৩.৫ মিলিয়নের বেশি কর্মসংস্থান তৈরি হবে। তবে এতগুলো কর্মসংস্থান তৈরি হলেও তার সাথে পাল্লা দিয়ে কর্মচারীর সংখ্যা বাড়ছে না। তাছাড়া যথেষ্ট পরিমাণে দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা না থাকলে সেসব কোম্পানিতে সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিষ্ট হিসেবে চাকরি পাওয়া কষ্টকর হয়ে পড়েছে।

Source: medium.com

তাই, সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিষ্ট হিসেবে ক্যারিয়ার গড়তে হলে আপনার থাকা চাই যথেষ্ট দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা। চলুন আজ জানা যাক, কীভাবে একজন সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিস্ট হিসেবে ক্যারিয়ার গড়বেন।

একজন সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিস্ট যেভাবে কাজ করেন

সাধারণত একজন সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিস্টের কাজ কোম্পানিভেদে বিভিন্ন হতে পারে। কারণ সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিস্ট ছাড়াও আরো বেশ কিছু পদ রয়েছে, যেগুলো সাইবার সিকিউরিটির সাথে যুক্ত। যেমন, ক্রিপ্টোগ্রাফার, ইন্সিডেন্ট রেস্পন্ডার, ভালনারেবিলিটি এসেসর, সিকিউরিটি অ্যানালিস্ট ইত্যাদি।

Source: techrepublic.com

একজন সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিস্ট মূলত  যেসকল কাজ করে থাকেন,

  • সিকিউরিটি আপডেট ও এর উন্নয়ন বিশ্লেষণ করেন
  • সিকিউরিটি অ্যাডমিনিস্ট্রেটরদের দেখাশোনা করেন
  • বিভিন্ন সিস্টেমের ক্ষয়ক্ষতি, পরিবর্তন ও অনৈতিক প্রবেশাধিকার নিয়ে গবেষণা করে থাকেন
  • বিভিন্ন সিকিউরিটি টুলস ও অ্যাপ্লিকেশন সঠিকভাবে কাজ করছে কিনা তা দেখাশোনা করেন
  • ফায়ারওয়াল ও অ্যান্টিভাইরাস ব্যবস্থাপনায় অ্যান্টিভাইরাস ডেভেলপার ও নেটওয়ার্ক অডিটরকে সাহায্য করেন
  • ক্রিপ্টোগ্রাফার, ভালনারেবিলিটি এসেসর ও সিকিউরিটি অ্যানালিস্টকে প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকেন
  • বিভিন্ন কোম্পানির সিস্টেমের জন্য উপযুক্ত সিকিউরিটি সফটওয়্যার তৈরি করেন

Source: itech.edu

একজন সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিস্টকে তার ক্যারিয়ার জুড়ে বিভিন্ন ধরনের পদে কাজ করতে হয়। শুরুতেই এন্ট্রি লেভেলে তিনি একজন সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিষ্ট সিস্টেম অ্যাডমিনিস্ট্রেটর, সিকিউরিটি অ্যাডমিনিস্ট্রেটর অথবা নেটওয়ার্ক অ্যাডমিনিস্ট্রেটর হিসেবে কাজ করে থাকেন। দক্ষতা আর অভিজ্ঞতা বাড়ার সাথে সাথে তিনি এন্ট্রি লেভেল থেকে সিনিয়র লেভেলে পৌঁছান।

Source: 7emirate.com

সিনিয়রে লেভেলে একজন সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিষ্ট আইটি প্রজেক্ট ম্যানেজার, সিকিউরিটি ম্যানেজার, সিকিউরিটি কনসালটেন্ট অথবা সিকিউরিটি আর্কিটেক্ট হিসেবে কাজ করে থাকেন। সর্বশেষ পর্যায়ে অর্থাৎ এক্সিকিউটিভ লেভেলে তিনি চিফ ইনফরমেশন সিকিউরিটি অফিসার অথবা সিকিউরিটি ডিরেক্টর হিসেবে কাজ করেন।

Source: indeed.com

সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিষ্ট হওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় অভিজ্ঞতা

একজন সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিষ্ট হিসেবে ক্যারিয়ার গড়তে চাইলে প্রচুর দক্ষতা ও অভিজ্ঞতার প্রয়োজন হবে। অভিজ্ঞতা অর্জনের জন্য আপনি সাইবার সিকিউরিটির সাথে সম্পৃক্ত বিভিন্ন পদে কাজ করতে পারেন। এক্ষেত্রে ক্রিপ্টোগ্রাফার, সিকিউরিটি অডিটর, ফরেনসিক এক্সপার্ট, পেনিট্রেশন টেস্টার, সিকিউরিটি কনসালটেন্ট ও সিকিউরিটি ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কাজ করতে পারলে আপনার অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা দুইই বৃদ্ধি পাবে।

Source: simplenetsoftware.com

 সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিস্টের যেসব দক্ষতা থাকা প্রয়োজন

একজন সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিষ্টকে বিভিন্ন কোম্পানিতে বিভিন্ন পদবিতে কাজ করতে হয়। তার মধ্যে, আইটি সিকিউরিটি স্পেশালিস্ট, কম্পিউটার সিকিউরিটি স্পেশালিস্ট, ইনফরমেশন সিকিউরিটি স্পেশালিস্ট ও নেটওয়ার্ক সিকিউরিটি স্পেশালিস্ট অন্যতম। যদিও পদগুলোর নাম আলাদা কিন্তু সবগুলো পদেই সমান দক্ষতা ও অভিজ্ঞতার প্রয়োজন পড়ে।

Source: topitguy.com

একজন সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিষ্ট হিসেবে যেসব দক্ষতা আপনার থাকা প্রয়োজন,

  • সিকিউরিটি ইনফরমেশন এন্ড ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট পদ সম্পর্কে জানতে হবে
  • যেকোনো সিস্টেম, সফটওয়্যার ও ওয়েবসাইটের ভলনারেবিলিটি ও পেনিট্রেশন টেস্টিং সম্পর্কে জানতে হবে
  • ফায়ারওয়াল, অ্যান্টিভাইরাস ও অ্যান্টিম্যালওয়্যার সম্পর্কে গভীর জ্ঞান থাকতে হবে
  • সি, সি প্লাস প্লাস, সি শার্প, জাভা, পিএইচপি, জাভাস্ক্রিপ্ট এবং পাইথনে যথেষ্ট দক্ষতা ও প্রোগ্রামিংয়ে কমপক্ষে ৫ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে
  • ইউনিক্স, লিনাক্স, উইন্ডোজ, ম্যাক ও আইওএস অপারেটিং সিস্টেম সম্পর্কে যথেষ্ট দক্ষতা থাকতে হবে
  • ইথিক্যাল হ্যাকিং, কোড ডিবাগিং, ক্রিপ্টোগ্রাফি এবং থ্রেড মডেলিং সম্পর্কে গভীর জ্ঞান থাকতে হবে
  • প্রক্সি সার্ভার, ভিপিএন, প্যাকেট শিফটার ও ওয়ারল্যাস নেটওয়ার্ক সম্পর্কে জানতে হবে
  • ল্যান, প্যান, ম্যান ও আইপি, টিসিপি ও প্রটোকল সম্পর্কে যথেষ্ট জ্ঞান থাকতে হবে

Source: ecpi.edu

উপরের দক্ষতাগুলোকে ‘হার্ড স্কিল’ বলা হয়। যদিও একজন সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিষ্ট হিসেবে ক্যারিয়ার গড়তে হলে উপরের হার্ড স্কিলগুলো ছাড়াও কিছু সফট স্কিলের দরকার পড়বে। সেগুলো হচ্ছে,

  • সেলফ মোটিভেশন
  • টিম ম্যানেজমেন্ট ও টিমওয়ার্ক করার দক্ষতা
  • অসাধারন যোগাযোগ দক্ষতা
  • ক্রিটিক্যাল থিংকিং করার দক্ষতা
  • যেকোনো সমস্যার সমাধান করার দক্ষতা

Source: insider.co.uk

সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিষ্ট হিসেবে ক্যারিয়ার গড়তে প্রয়োজনীয় শিক্ষাগত যোগ্যতা

ফোর্বসের একটি আর্টিকেলে ১৩টি উচ্চ বেতনের চাকরির কথা বলা হয়েছে, যেগুলোতে কোনো ধরনের ডিগ্রির প্রয়োজন নেই। তার মধ্যে সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিস্ট অন্যতম। সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিস্ট হিসেবে ক্যারিয়ার গড়ার জন্যে আপনার আইটি সম্পর্কে দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা থাকা লাগবে। এক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রয়োজন নেই বললেই চলে।

Source: emerchantbroker.com

তবে আপনি যদি শিক্ষাগত যোগ্যতার দিকে মনোযোগ দিয়ে থাকেন, তাহলে জেনে রাখুন, যেকোনো ইউনিভার্সিটি থেকে কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, নেটওয়ার্ক ইঞ্জিনিয়ারিং কিংবা যেকোনো টেকনিক্যাল ডিগ্রিই এই পদের জন্যে যথেষ্ট। তবে  সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিস্ট হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হতে চাইলে বেশ কিছু প্রাতিষ্ঠানিক যোগ্যতা ও তার সনদপত্রের দরকার পড়বে।

Source: thenextweb.com

সনদপত্রগুলোর আপনি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে সাইবার সিকিউরিটির বিভিন্ন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে সংগ্রহ করতে পারবেন। সনদপত্রগুলো হচ্ছে,

  • ইসি কাউন্সিল নেটওয়ার্ক সিকিউরিটি অ্যাডমিনিস্ট্রেটর (ইএনএসএ)
  • সিসকো সার্টিফাইড নেটওয়ার্ক অ্যাসোসিয়েট – রাউটিং এন্ড সুইচিং (সিসিএনএ)
  • সার্টিফাইড ইনফরমেশন সিকিউরিটি ম্যানেজার (সিআইএসএম)
  • সার্টিফাইড ইনফরমেশন সিস্টেমস সিকিউরিটি প্রফেশনাল (সিআইএসএসপি)
  • কম্পটিয়াস পপুলার বেজ লেভেল সিকিউরিটি সার্টিফিকেশন (সিকিউরিটি প্লাস)

Source: europanetworking.net

একজন সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিস্টের বেতন

Source: cisco.com

বাংলাদেশে একজন সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিস্টের বাৎসরিক বেতন ১০ লক্ষ টাকা থেকে শুরু করে ৩০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত হতে পারে। এছাড়াও, বাংলাদেশের বাইরে অর্থাৎ ভারত, যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি, সুইডেন, নেদারল্যান্ডসহ বিভিন্ন উন্নত দেশে একজন সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিস্টের বাৎসরিক বেতন সর্বোচ্চ ৮০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত হতে পারে। এছাড়া দক্ষতা, অভিজ্ঞতা ও যোগ্যতার উপর নির্ভর করে একজন সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিস্টের বাৎসরিক বেতন কয়েক কোটি টাকাও ছাড়িয়ে যেতে পারে।

Featured Image: militarynews.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *