চাকরিপ্রার্থীরা জেনে নিন ১০টি হিডেন জব মার্কেটের খোঁজ

বর্তমানে আপনি যদি নিজের যোগ্যতা অনুযায়ী চাকরির খোঁজ করে থাকেন তবে এই লেখাটি আপনার জন্য। এর মধ্যেই নিশ্চয়ই কিছু জব মার্কেটে আপনি ঢুঁ মেরেও দেখেছেন। আগে চাকরির বিজ্ঞপ্তিগুলো কেবল পত্রিকাতেই সীমাবদ্ধ ছিল। কিন্তু বর্তমান ইন্টারনেটের যুগে ইন্টারনেটের অলিতে গলিতে আপনি নানা রকম পার্ট টাইম, ফুলটাইম, অনলাইন, অফলাইন কাজের সন্ধান পেয়ে যাবেন।

ছবিসূত্রঃ Minedex

নিয়োগকর্তারাও চাকরির বিজ্ঞপ্তির জন্য কেবল পত্রিকার উপর নির্ভর করেন না। বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া কিংবা ব্লগসাইটে বিজ্ঞাপন দিয়ে তারা নিজেদের পছন্দমতো প্রার্থী খুঁজে নেন। এগুলোকেই বলা হয় হিডেন জব মার্কেট। তাই আপনি যদি প্রার্থী হয়ে থাকেন তবে আপনার চাকরি পাওয়ার সম্ভাবনা বাড়াতে জেনে নিন এরকম ১০টি হিডেন জব মার্কেটের সন্ধান।

১. অনলাইনে নিজের নেটওয়ার্ক প্রসারিত করুন

ছবিসূত্রঃ Vapulus

অনলাইনে বিভিন্ন সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে যেমন লিংকডইন, গুগল প্লাস, ফেসবুক, টুইটার, ইত্যাদি প্ল্যাটফর্মে একাউন্ট খুলুন। এগুলোতেও নিয়োগকর্তারা বিজ্ঞাপন দিয়ে থাকেন। কারণ সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে প্রার্থীর প্রোফাইল থেকেও তার পেশাদারি দক্ষতা, ভাষার ব্যবহার, ব্যক্তিত্ব ইত্যাদি সম্পর্কে নিয়োগকর্তারা আন্দাজ করতে পারেন যা বায়োডাটা বা কয়েক মিনিটের ইন্টারভিউয়ে পাওয়া সম্ভব না।

২. অনলাইনে বিভিন্ন গ্রূপের সদস্য হোন

আপনি যে কোম্পানিতে কাজ করতে চান কিংবা যে সম্পর্কিত কাজ করতে চান সেই কোম্পানি বা কাজ সংক্রান্ত অসংখ্য গ্রূপ ফেসবুক বা অন্যান্য নেটওয়ার্কিং সাইটে পাবেন। সেগুলোতে সদস্য হোন। সেখানে বিভিন্ন পদ ও কাজের জন্য অনেক চাকরির বিজ্ঞাপন পেয়ে যাবেন। এছাড়াও নিজের পরিচিতি বাড়ানোর জন্য গ্রূপ অ্যাডমিন বা মডারেটরের সাথে কথা বলে বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবামূলক কাজ যেমন মিটিং এর ব্যবস্থা করে দেয়া কিংবা কোনো লেখনী তৈরী করে দেয়া ইত্যাদি কাজে অংশ নিন। এভাবে তাদের সাথে যোগাযোগ রাখলে তাদের খালি পোস্টটির জন্য আপনারও ডাক পড়তে পারে।

৩. আপনার পছন্দের কোম্পানির পছন্দ অনুযায়ী নিজেকে তৈরী করুন ও তাদের সাথে যোগাযোগ করুন

গ্রূপে সদস্য হবার পর আপনার প্রথম কাজ সেই কোম্পানি সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করা। তাদের সবরকম কাজ এবং কর্মচারীদের যোগ্যতা সম্পর্কে ধারণা নিন। নিজের কোনো যোগ্যতা বা কোর্সের অভাব থাকলে তা পূরণ করার চেষ্টা করুন। সেই অনুযায়ী নিজের অনলাইন প্রোফাইল আপডেট করুন এবং সিভি তৈরী করুন। এরপর ওই কোম্পানির এক্সিকিউটিভ বা অন্যান্য কর্মচারীদের সাথে কথা বলার চেষ্টা করুন ও নিজের যোগ্যতার প্রমান দিন।

৪. ইন্টারনেটে পছন্দের কোম্পানির সাইট খুঁজে বের করুন

ছবিসূত্রঃ Ionoptika

বর্তমানে প্রতিটি কোম্পানিরই নিজস্ব ওয়েবসাইট আছে যাতে কোম্পানি সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য দেয়া থাকে। প্রতিদিন সাইটের আপডেট সম্পর্কে খোঁজ নিন। চাকরির বিজ্ঞাপন সেখানেই সবার আগে দেয়া হয়ে থাকে।

৫. প্রতিদিন খবরের চ্যানেল দেখুন

শুধু চাকুরীর বিজ্ঞাপনের জন্য নয়, আপনার আশপাশের পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে প্রতিদিনকার খবর দেখুন। বিশেষ করে ব্যবসা ও অর্থনীতি সম্পর্কিত টকশো, আলোচনা এগুলোও দেখুন। এখানে থেকেও আপনি নিজের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা বা নিজেকে কিভাবে আরও যোগ্য করে তুলবেন সে ব্যাপারে ধারণা পেতে পারেন।

৬. লিংকডইনের (LinkedIn) যথাযথ ব্যবহার করুন

চাকরিজীবী, পেশাদার, নিয়োগকর্তা তথা জব মার্কেটের অধিকাংশ ব্যক্তিরই লিঙ্কডিনে প্রোফাইল থাকে। লোকদিনের বিভিন্ন ফোরাম, গ্রুপ ইত্যাদিতে সদস্য হোন ও গ্রুপভিত্তিক আলোচনায় অংশ নিন। মনে রাখবেন হয়তো এখানেও কোনো পেশাদার নিয়োগকর্তা আপনার ভাষার ব্যবহার, কীভাবে আপনি অন্যান্য সদস্যদের সাথে লিয়াজু রাখছেন এগুলো সব খেয়াল করছেন। তার পছন্দ হলে হয়তো নিজের অজান্তেই কোনো চাকরির জন্য আপনি মনোনীত হয়ে যেতে পারেন।

৭. বিভিন্ন এসোসিয়েশনে যোগ দিন

আপনি যে ধরণের কাজ খুঁজছেন সে ধরণের কাজ সম্পর্কিত অনেক এসোসিয়েশন পেয়ে যেতে পারেন যারা সে কাজ বা কোম্পানির প্রচারে কাজ করছে। আপনিও তাদের সাথে কাজ করুন। প্রয়োজনে এসোসিয়েশনের আয়োজিত বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবামূলক কাজে যোগ দিতে পারেন। এতে আপনার বিভিন্ন পেশাদার লোকদের সাথে পরিচয় হবে এবং নিজের অনেক অভিজ্ঞতা বৃদ্ধি পাবে।

৮. বিভিন্ন জব ফেয়ার পরিদর্শন করুন

ছবিসূত্রঃ Columbia School of Social Work – Columbia University

প্রতিনিয়ত বিভিন্ন কোম্পানি, শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান ইত্যাদিতে জব ফেয়ারের আয়োজন করা হচ্ছে। কোথায় কবে এগুলো আয়োজিত হচ্ছে এবং কোন কোন কোম্পানি আসছে সে সম্পর্কে চোখ-কান খোলা রাখুন এবং সময়মতো যথাযথ প্রস্তুত হয়ে জব ফেয়ার পরিদর্শন করুন।

৯. আপনার আশপাশের সবাইকে আপনার পছন্দের চাকরির খোঁজ করতে বলুন

ছবিসূত্রঃ bucurestifm.ro

আপনার আত্মীয় ও বন্ধু সবাইকে আপনার পছন্দের কোম্পানি বা চাকরির আগ্রহের কথা জানান, তারা হোক পেশাদার বা অপেশাদার। চেষ্টা করুন কোম্পানিটির ভেন্ডর (উক্ত কোম্পানিতে বিভিন্ন মালামাল সরবরাহ করে এমন ব্যক্তি বা কোম্পানি) এর কর্মচারীদের সাথে যোগাযোগ করতে যেন তারাও প্রয়োজনে সুপারিশ করতে পারে।আপনার সিভি সবসময় প্রস্তুত রাখুন, যেন প্রয়োজনে যে কাউকে যে কোনো সময় আপনি সিভি দিতে পারেন।

১০। সরাসরি কোম্পানির ই-মেইলে মেইল করুন

কোম্পানির ওয়েবসাইটের ‘কন্টাক্ট আস’ (Contact us) অপশনে আপনি কোম্পানির ইমেইলের ঠিকানা পেয়ে যাবেন। সেখানে আপনি আপনার কাজ করার আগ্রহ ও যোগ্যতা লিখে এবং সাথে নিজের সিভি যোগ করে মেইল পাঠাতে পারেন। এছাড়াও যে সকল ব্যক্তির পরিচয় ও ফোন নাম্বার বা ইমেইল আইডি দেয়া আছে তাদের সাথেও আপনি যোগাযোগ করতে পারেন।

চাকরি পাওয়ার আগে পর্যন্ত আপনি কখনোই নিশ্চিত নন যে কোন পথে এগোলে আপনি চাকরি পাবেন। তাই সবরকম সুযোগের সদ্ব্যহার করুন।

Featured Image: Teachable

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *